সোমবার, এপ্রিল ১২, ২০২১




কেমন আছেন খালেদা জিয়া?

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। এখন পর্যন্ত তার (খালেদার) শরীরে করোনার কোনো উপসর্গ নেই। স্বাভাবিকভাবেই তিনি শ্বাস-প্রশ্বাস নিচ্ছেন। শুধু তিনি নন, করোনা আক্রান্ত তার অন্য স্টাফদের অবস্থাও ভালো আছেন।

সোমবার (১২ এপ্রিল) খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. জাহিদ হোসেন এই তথ্য গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ২৪ ঘণ্টাই ম্যাডামের শারীরিক অবস্থার খোঁজ রাখা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত তিনি সুস্থ আছেন। আপনারা তার জন্য দোয়া করবেন। তিনি দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা যায়, রাজধানীর গুলশানে খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজায় দ্বিতীয় তলার একটি রুমে আছেন তিনি। রাতে লন্ডনে অবস্থানরত ছেলে তারেক রহমান ও প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর পরিবারের সদস্যরা অনলাইনে ভিডিওকলে তার সার্বিক শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিয়েছেন। এছাড়া ফিরোজায় অবস্থানরত খালেদার ব্যক্তিগত স্টাফদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন তার ভাই শামীম ইস্কান্দর ও ছোট ভাইয়ের স্ত্রী।

ডাক্তারদের একটি সূত্র জানায়, এখন প্রতিদিন নিয়ম করে খালেদা জিয়াকে দেখতে যাবেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. এফ এম সিদ্দিকী ও ড. মামুন। আর লন্ডন থেকে তাদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন বড় ছেলের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান। এছাড়া খালেদা জিয়ার অন্যান্য ডাক্তার এবং ড্যাবের চিকিৎসকরাও তার খোঁজ রাখছেন।

উল্লেখ্য, দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ড নিয়ে তিন বছর আগে কারাগারে গিয়েছিলেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। গত বছর দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর সরকার নির্বাহী আদেশে তাকে সাময়িক মুক্তি দেয়। এরপর গত বছরের ২৫ মার্চ থেকে গুলশানের এই বাড়িতেই রয়েছেন তিনি। এই এক বছরে নিকটাত্মীয় ছাড়া বিএনপি নেতারা কালেভদ্রেই তার দেখা পেয়েছিলেন।

নিরাপত্তাকর্মীদের একজন বলেন, ম্যাডাম দোতলায় আছেন। কারও প্রবেশাধিকার এখন আর নেই সেখানে। আগে কয়েকজন আত্মীয়-স্বজন আসতেন। আজকে কেউ আসেননি। তারা টেলিফোনে ম্যাডামের খোঁজ-খবর রাখছেন। খালেদা জিয়ার বোন ও ভাই বিভিন্ন সময় তার খোঁজ-খবর নিতে ফিরোজায় যান। তার বড় ছেলে তারেক রহমান দুর্নীতির মামলায় দণ্ড নিয়ে সপরিবারে যুক্তরাজ্যে রয়েছেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen − 4 =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর