শুক্রবার, জুন ১১, ২০২১




রাঙ্গাবালীতে সামুদ্রিক পোনা মাছ নিধন, হুমকিতে জলজ প্রাণিসম্পদ

এম,নিয়াজ মোর্শেদ, পটুয়াখালী:
নদী ও সংযোগ খাল থেকে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চিংড়ির পোনা ধরছেন জেলেরা। এতে বিভিন্ন প্রজাতির মাছের পোনা নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।
প্রকাশ্য দিবালোকে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার বিভিন্ন নদ নদীতে নিষিদ্ধ ছোট ফাঁসের জাল দিয়ে অবাধে সামুদ্রিক পোনা মাছ নিধনের মহোৎসব চলছে। এ জালে বড় মাছের পাশাপাশি বিভিন্ন প্রজাতির মাছের পোনাও আটকা পরছে। বাদ যাচ্ছে না জ্বলজ প্রাণীও।
আর এতে হুমকিতে পরেছে জ্বলজ প্রাণিসম্পদ ইলিশের পোনা, বাগদা চিংড়ির পোনা, লবস্টার, কোড়াল, টেংরা, বাইলা সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ নির্বিচারে শিকার করেন রাবনাবাদ নদীতে, চর তুফানিয়া, খলিফার চর,ঘ্যাফের চর সহ বিভিন্ন স্পটে অসাধু জেলেরা নির্বিচারে এসব বাগদার চিংরি ও সামুদ্রিক পোনা মাছ নিধন করছেন।
মৎস্য আইনে মাছের পোনা সংরক্ষণে সোয়া চার ইঞ্চির কম ফাঁস জাল ব্যবহার করা দন্ডনীয় অপরাধ। অথচ ওই এলাকায় আধা ইঞ্চি থেকে পৌনে এক ইঞ্চি ফাঁস জাল ব্যবহার করা হচ্ছে।
পটুয়াখালী দুমকি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিসারিজ ম্যানেজমেন্টে বিভাগের সহকারি অধ্যাপক ড. ফেরদৌস আহমেদ জানান, ছোট ফাসের অবৈধ জাল দিয়ে মাছ ধরা ঠিখ নয়। পোনা সহ বিভিন্ন প্রাণী ওই জালে উঠে আসে। এতে মাছের বংশবিস্তার হুমকির মধ্যে পরছে। সব প্রাণিই আমাদের এ জগতে দরকার আছে। জেলেদের জালের সাথে যে জলজপ্রাণিগুলো উঠে আসছে সেই প্রাণিগুলো কিন্তু আর তাদের গন্তব্যে ফিরে যেতে না পারায় মারা যাচ্ছে। আর এতে প্রকৃতি ও পরিবেশ হুমকির মুখে পরবে।
স্থানীয়রা জানান, মাছের পোনা শিকার করতে বেহুন্দিজাল, বেড়জাল, খোরা জাল, কারেন্ট জাল, সুঁতিজালসহ নানা মাছ শিকারের উপকরণ দিয়ে দিনরাত সমানতালে চলছে পোনা মাছ নিধনের মহোৎসব। আধা ইঞ্চি থেকে পৌনে এক ইঞ্চি ফাঁস জাল ও জিরো ফাসেঁর জাল ব্যবহার করে অবাধে পোনা মাছ মারা হচ্ছে। এতে মৎস্য সম্পদের স্বাভাবিক প্রজনন, বংশবিস্তার ও বৃদ্ধি ব্যাহত হচ্ছে। পাশাপাশি তারা জলজ সম্পদও বিনষ্ট করছেন। উপজেলার সাগর সংলগ্ন চর তুফানিয়া সহ বিভিন্ন পয়েন্টে নিষিদ্ধ জালে যেভাবে ইলিশসহ বিভিন্ন সামুদ্রিক মাছের পোনা অবাধে হত্যা করা হচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে মৎস্য সম্পদ হুমকির মুখে পরবে।
রাঙ্গাবালী উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আনোয়ারুল হক বাবলু বলেন, উপজেলার বিভিন্ন নদ নদীতে আমাদের অভিযান চলছে এবং ভবিষ্যতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।
এ বিষয়ে পটুয়াখালী জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোল্লা এমদাদুল্লাহ জানান, এ বিষয়ে অভিযান পারিচালনা করা হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 − 9 =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর