রবিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২১




শীতলক্ষ্যা ও ব্রম্মপুত্র নদের সংযোগ খাল অবৈধ দখলে

মো: সহিদুল ইসলাম শিপু:

নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলার শীতলক্ষ্যা ও ব্রম্মপুত্র নদের সংযোগ খাল অবৈধ ভাবে দখল করে বহুতল ভবন ও মারকেট অফিস করে রেখেছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা মহল। উপজেলার নবীগঞ্জ টু কাইকারটেক সড়কের পাশ গেসে বয়ে যাওয়া খাল পুরো দখল করে নিয়েছে ইউপি চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় প্রভাবশালী মহল।

দখল করে ঘরবাড়ি, রাস্তা, নার্সারী মার্কেটসহ বহুতল ভবন তুলে খালের অস্তিত্ব বিলীন করে দিয়েছেন। যে খালটি দিয়ে এক সময় বন্দর এর বিাভন্ন এলাকার জনগণ নৌকায় করে যাতায়াতসহ বিভিন্ন পণ্য সামগ্রী আনা নেয়া করতেন সেই খালটি দখলদারদের কবলে পড়ে মৃত অবস্থা।
৪ জানুয়ারী (শনিবার) নবীগঞ্জ টু কাইকারটেক সড়কের পাশ গেশে বয়ে যাওয়া খালটি সরেজমিনে দেখা যায় নবীগঞ্জ বাসষ্টান্ড সংলগ্ন বন্দর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহম্মেদ, এহসান উদ্দিন আহম্মেদের ভাই, মোশারফ হোসেন, স্বপন, জহিরুল ডাক্তার, এমদাত হোসেন, তারেক হাছান, বাতেন, শহিদুল্লাহ মেম্বার, আব্দুল হাই, মোস্তাক হোসেন, আব্দুল হকসহ একাধিক ব্যক্তি খাল অবৈধ দখল করে মার্কেট ও ঘরবাড়ি ও বহুতল ভবন নির্মাণ করে রেখেছে। দেখে বোঝার উপায় নেই যে এখানে কোন খাল আছে বা ছিলো।

এব্যপারে মো: মজিবর রহমান, রমজান মিয়া, আমিনুর ইসলাম, হাজী মো: রফিকুল ইসলাম, আবুল হোসেন মেম্বারসহ একাধিক ব্যক্তি বলেন, খাল দখলের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন বন্দর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহম্মেদসহ স্থানীয় প্রভাবশালী মহল। দিনে দিনে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে আবার কেউ ট্রাকে করে বালু এনে খালটি ভরাট করে ফেলেছে কিন্তু দেখার কেও নেই। শত বছরের পুরোনো খালটি দুইটি নদীর সঙ্গে সংযোগ ছিল দখলদারদের কবলে পড়ে তা আজ বিচ্ছিন্ন। এই খালটি দিয়ে এক সময় আমরা নৌকায় করে যাতায়াতসহ বিভিন্ন পণ্য সামগ্রী আনা নেয়া করতাম এখন বোঝার উপায় নেই যে এখানে কোন খাল আছে বা ছিলো। আমরা সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে দাবি জানাই সরেজমিনে পরিদর্শন করে দীর্ঘদিনের ঐতিহ্যবাহী খালটিকে দখলমুক্ত করবেন।
এব্যপারে বন্দর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহম্মের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্ঠা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেন না।

এব্যপারে বন্দর উপজেলার নির্বাহী অফিসার এ বি এম কুদরত-এ-খোদা বলেন, আমার কাছে খাল দখলের বিষয়ে এলাকাবাসী জানিয়েছেন আমি খাল দখলদারের একটি তালিকা তৈরি করতে আমার এসিল্যান্ডকে বলেছি এবং তালিকা তৈরি হলে অভিযান চালিয়ে সরকারি খাল দখলমুক্ত করবো।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen + four =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর