বৃহস্পতিবার, জুন ৯, ২০২২




বন্দরে কিশোর গ্যাং লিডার কান কাটা বাবুর হামলায় আহত ২

নারায়ণগঞ্জ প্রতিদিনঃ

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২৫নং ওয়ার্ডের বন্দর থানা দিন লক্ষণখোলা এলাকায় কিশোর গ্যাং লিডার বাবু ওরফে কানকাটা বাবুর হামলায় আহত ২ জন।

আহতরা হলো আওয়ামী লীগ নেতা ও স্থানীয় বালু ব্যাবসায়ী আবু হাসানাত সুমন ও সোহাগপুর কারখানার লাইনম্যান।

কানকাটা বাবু গতকাল (মঙ্গলবার) রাতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সেহাগপুর মিলের লাইনম্যানকে মারধর করে। এসময় স্থানীয় এক যুবক মফিজ থামাতে গেলে তার সাথে তর্কে জড়িয়ে পরে ওই কিশোর গ্যাংয়ের লিডার বাবু। পরবর্তীতে আবু হাসানাত সুমন বিষয় মিটমাট করিয়ে দিতে গেলে তাকেও মারধর করে বখাটে। এরপর আশপাশের লোকজন উভয় পক্ষকে থামিয়ে দিয়ে সবাই চলে যায়। পরে বুধবার সকালে সুমনকে একটি মুরগির দোকানে বসে থাকতে দেখে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত আঘাত করে। এতে সুমনের হাত, পা ও হাটু সহ শরীরের বিভিন্ন অংশে রক্তাক্ত ও নিলা ফুলা ও জখম হয়৷ এসময় সুমনের পাশে বসা গাড়ির ব্যবসায়ী নাসির নামের একজন আহত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বাবু অরুপে কানকাটা বাবু  লক্ষনখোলা এলাকার ঘর জামাই বাবুলের ছেলে। সে সামান্য একটি বিষয় নিয়ে স্থানীয় শিক্ষত একজন ব্যবসায়ী সুমনকে মারধর করেছে। শুধু তাই নয় সে লক্ষ্মণখোলা এলাকায় কেরাম বোর্ডের নামে জুয়ার আসর বসানো সহ মাদক বিক্রি ও সেবন সহ নানা অপরাধ করে।  তার বিরুদ্ধে কেউ কথা বললে তার উপর কানকাটা বাবু হামলা চালায়। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ারও দাবী জানিয়েছে স্থানীয়রা।

এদিকে ভুক্তভুগী আবু হাসানাত সুমন জানায়,  স্থানীয় একজনের সাথে খারাপ ব্যবহার সহ মারধর করছিলো। তাতে আমি বাধা দেই এবং থামাতে চেষ্টা করি।  এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আমার উপর হাত তুলে। পরে স্থানীয় মুরুব্বি ও বাবুর মামা এসে ঘটনাটি সমাধানের কথা বললে আমরা চলে আসি। পরে বুধবার সকালে একটি মুরগীর দোকানে বসাবস্থায় আমাকে জিআই পাইপ দিয়ে পেছন থেকে এলোপাতাড়ি পিটাতে থাকে। এসময় আমার হাত, পা ও শরীরের বিভিন্ন অংশ ফেটে যায় এবং রক্তাক্ত হই। আমার পাশে নারায়ণগঞ্জ টেক্সি ক্যাব স্টান্ডের নেতা নাসিরের হাতে আঘাত লাগে এবং তিনও আহত হন। এ ঘটনায় আমি বাদী হয়ে বন্দর থানার একটি অভিযোগ দায়ের করেছি। পুলিশের কাছে আমি এঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবী করছি।

এ বিষয়ে বন্দর থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই)  আবুল হাসান জানান,  ঘটনাস্থলে গেয়েছি এবং ঘটনার সত্যতা পেয়েছি। দোষীর বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − fourteen =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর