মঙ্গলবার, মার্চ ১৬, ২০২১




সেন্ট্রাল হাসপাতালে আবারো প্রসূতির মৃত্যু, ৫ লাখ টাকায় রফাদফা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিদিন :

নারায়ণগঞ্জে সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মৃত্যুর ঘটনায় ৫ লাখ টাকায় রফাদফা। ৫০ হাজার টাকা নগদ এবং বাকি ৪ লাখ টাকার দুটি  চেকের মাধ্যমে লেনদেন হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

সোমবার রাত ১১ টায় শহরের খানপুর এলাকায় অবস্থিত সেন্ট্রাল জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার পর নিহতের স্বজনেরা লাশ নিয়ে হাসপাতাল ঘেরাওসহ বিক্ষোভ এবং ভাংচুর করেছেন। নিহত  মোসাঃ পান্না বেগম (৩০) চাঁদপুর জেলার মতলব থানা দিন ছেঙ্গারচর এলাকার মোঃ জিসান এর স্ত্রী। মৃত্যুর আগে পান্না একটিিি ফুটফুটে মেয়ে বাবুর জন্ম দিয়েছে। এছাড়াা পান্নার ফয়সাল নামের ১০ বছরের একটি ছেলে এবং হাসান নামে ৫ বছরের আরো একটি সন্তান রয়েছে। এ ঘটনার কিছুদিন পূর্বে শহরের খানপুর শাহিন ক্লিনিকে এক প্রতিবন্ধীর স্ত্রীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। ঠিক এই রকম ভাবে একটি শিশুর জন্ম দিয়ে ওই প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে। ওই ঘটনায় হসপিটাল কর্তৃপক্ষ নিহতের পরিবারের সাথে ৪ লাখ টাকায় রফাদফা করে হাসপাতালের মালিক। ওই সময়ে সিজার করেছিল খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতালের গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাক্তার জাহাঙ্গীর আলম।

আর এবার প্রসূতির সিজার করেছিল ডাঃ সৈয়দা মিসকাদ জাহান হেনা। এবং তার ভুল চিকিৎসার জন্য নবজাতকের মায়ের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে নিহতের পরিবার।

তবে এ বিষয়ে ডাঃ সৈয়দা মিসকাদ জাহান হেনা বলেন, আমার চিকিৎসার জন্য নবজাতকের মা মারা যায় নি।

এভাবে কিছুদিন পূর্বে শহরের খানপুর এলাকায় শাহিন ক্লিনিক নামের একটি বেসরকারি হসপিটালে ভুল চিকিৎসায় প্রতিবন্ধী বিল্লাল এর স্ত্রী মৃত্যুবরণ করেন। এরপর রোগীর স্বজনরা বিক্ষোভ করলে সেই ঘটনা ৪ লাখ টাকায় রফাদফা হয়।

এ বিষয়ে সচেতন মহল মনে করেন, বেসরকারি ক্লিনিকগুলোর প্রতি জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কোন নজরদারী নেই। এ ধরনের রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় কোনো ধরনের আইনি কোনো পদক্ষেপ না থাকায় একের পর এক ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু হচ্ছে। এদের বিরুদ্ধে কঠোরভাবে আইনগত ব্যবস্থা না নিলে আরো বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা জেলাবাসী।

বিস্তারিত আসছে,,,,

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven − 4 =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর