শনিবার, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১




সোনারগাঁয়ে জমি সংক্রান্ত বিরোধে কুপিয়ে আহত ২

নারায়ণগঞ্জ প্রতিদিন:

সোনারগাঁও উপজেলায় জমি-সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দুই সহোদরকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে প্রতিপক্ষ উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের গঙ্গা নগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।এ ঘটনায় আহতদের পিতা মোঃ মতিউল্লাহ বাদি হয়ে সোনারগাঁও থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,সোনারগাঁও উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের বাসিন্দা মোঃ মতিউল্লাহ ও মোঃ ইব্রাহীমের সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমিসংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল।তারই জের ধরে বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকাল এগারোটার দিকে ওই গ্রামের এসহাক মুন্সীর ছেলে মোঃ ইব্রাহীম,মোঃ হাশেমের ছেলে মোঃ রফিক,ঝাউচর গ্রামের মোঃ মোসলেহ উদ্দিনের ছেলে মোঃ কাইয়ুম,মোঃ মইনুদ্দিনের ছেলে মোঃ কালাম সহ অজ্ঞাত নামা ৩/৪ ব্যক্তি দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সুসজ্জিত হয়ে অভিযোগকারী মোঃ মতিউল্লাহ প্রধানের বাড়িতে জোরপূর্বক প্রবেশ করে মতিউল্লাহর ছেলে মোঃ আমির হোসেন ও মোঃ নাজির হোসেন নামের দুই সহোদরকে চাপাতি দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে মারাত্মক ভাবে জখম করে।তাদের ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে হামলাকারীরা অভিযোগকারী সহ তার পারিবারের সদস্যদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে স্থান ত্যাগ করে। এসময় হামলায় আহত আমির হোসেনের প্যান্টের পকেটে থাকা ১৬ হাজার ৫ শত টাকা নিয়ে যায়।পরে এলাকাবাসী আহত দুই সহোদরকে উদ্ধার করে সোনারগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক নাজির হোসেনের অবস্থা বেগতিক দেখে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। বর্তমানে নাজির হোসেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন আছেন।থানায় অভিযোগকারী মোঃ মতিউল্লাহ জানান,পিরোজপুর ইউনিয়নের চর সোনাউল্লাহ মৌজায় আমরা সাড়ে ৩ শতাংশ জমি ক্রয় করে টিনের ঘর তৈরি করে বসবাস করে আসছি। সেই জমি দীর্ঘদিন ধরে জোরপূর্বক দখল করার চেষ্টা করছে ইব্রাহীম গং । তারা ইতিপূর্বে আদালতের মাধ্যমে এই জমির উপর একটি নিষেধাজ্ঞা জারি করে। ইব্রাহীম গংরা এখন সেই নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গ করে অবৈধভাবে জমি দখল করে তাতে ঘর তৈরি করার চেষ্টা করছে।মতিউল্লাহ অভিযোগ করে বলেন, প্রতিপক্ষরা আমাকে ও আমার পরিবারকে হুমকি দিয়ে বলেছে-এ নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে জীবনের তরে শেষ করে ফেলবে। তাদের ভয়ে আমরা নিরাপত্তাহীনতা রয়েছি।এ ব্যাপারে সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মো.রফিকুল ইসলাম বলেন,এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তের মাধ্যমে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − six =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর