রবিবার, এপ্রিল ৪, ২০২১




আড়াইহাজারে গৃহবধূকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় ৪ যুবকের বিরুদ্ধে মামলা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিদিন:

আড়াইহাজারে এক গৃহবধূকে ৩১শে এপ্রিল বিকাল ৩টার দিকে স্থানীয় আগুয়ান্দী এলাকায় জোরপূর্বক রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে একটি ঘরে আটকে রেখে শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটেছে্।উক্ত ঘটনায় নির্যাতিতা নারী বাদী হয়ে গত শুক্রবার রাতে চার যুবককে আসামি করে একটি মামলা করেন।অভিযুক্তরা হলেন-স্থানীয় আগুয়ান্দী এলাকার আব্দুল জলিলের ছেলে ক্ষমতাসীন দলের সমর্থক তাবারক (৩৫), একই এলাকার মৃত রুমস্ত মিয়ার ছেলে মামুন (২৫), মাসুম (২৫) পিতা অজ্ঞাত, কাসেম মিয়ার ছেলে সবুজ (২৩)। তবে স্থানীয় বিভিন্ন প্রভাবশালী মহলের চাপে নির্যাতিতা নারী আইনি সহযোগিতা নিতে পারছিলেন না। খবর পেয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের এএসপি (সার্কেল ‘গ’) আবির হোসেন ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন।

মামলায় উল্লেখিত বিবরণ থেকে জানা গেছে, ৩১ এপ্রিল বিকাল ৩টার দিকে নির্যাতনের শিকার নারী ব্যক্তিগত কাজে স্থানীয় উচিৎপুরা বাজারের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন।বাজারের পূর্ব পার্শে¦র রাস্তায় আগুয়ান্দী এলাকায় মামুন, মাসুম ও সবুজ তার গতিরোধ করে।

এক পর্যায়ে তার সঙ্গে থাকা নিটক আত্মীয় এক যুবক সহ তাবারকের বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে তাদের আলাদা কক্ষে আটকে রেখে মারধর করা হয়।অভিযুক্তরা তার হাত ধরে টানাটানি করে শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে স্পর্শ করে।

এদিকে নির্যাতিতা নারী মোবাইল ফোনে জানান, উচিৎপুরা বাজারে আমার ভাইয়ের বন্ধু আল-আমিনকে কিছু টাকার দেয়ার জন্য যাই। এক পর্যায়ে আগুয়ান্দী এলাকায় আমার গতিরোধ করা হয়।মামুন, মাসুম ও সবুজ আমাকে ও আমার সঙ্গে থাকা আমার এক নিটকআত্মীয়কে জোরপূর্বক রিকশা করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।দুইজনকে দুই কক্ষে আটকে রেখে মারধার করা হয়।এক পর্যায়ে তারা সংবদ্ধ হয়ে আমাকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। ব্যর্থ হয়ে আমার শীরিরের স্পর্শকাতর বিভিন্ন স্থানে স্পর্শ করে।তিনি আরও বলেন, আমার ব্লাউজের ভিতরে থাকা ১০ হাজার টাকা নিয়ে যায়। একই সময়ে আমার সঙ্গে থাকা আত্মীয়র কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা লুট করা হয়।

আড়াইহাজার থানার পরিদর্ক  (তদন্ত) আনিসুর রহমান মোল্লা বলেন, নির্যাতিতা নারীর পক্ষ থেকে একটি মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 5 =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর