শনিবার, এপ্রিল ৩, ২০২১




মাওলানা মামুনুলকে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিল হেফাজত কর্মীরা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিদিন: 

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে নারীসহ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায় এক রিসোর্টে পাওয়ার পর তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে গেছে হেফাজতের কর্মীরা। ওই নারীকে দ্বিতীয় স্ত্রী বলে দাবি করেছেন মামুনুল হক।

শনিবার সন্ধ্যায় তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে পুলিশ। এ সময় ওই রিসোর্টে ব্যাপক ভাংচুর চালায় হেফাজতে ইসলামের কর্মী-সমর্থকরা। এতে রিসোর্টের মধ্যে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন সোনারগাঁওয়ের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আতিকুল ইসলাম, এসিল্যান্ড গোলাম মোস্তফা মুন্না, নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) টি আই মোশাররফ হোসেন, সোনারগাঁ থানার ওসি (তদন্ত) তবিদুর রহমানসহ অর্ধশতাধিক সাংবাদিক। এ সময় সমকালের সোনারগাঁও প্রতিনিধিও অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে মাওলানা মামুনুল হককে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়ে যায় বিক্ষুব্ধ হেফাজত কর্মীরা।

এর আগে বিকেল থেকে মাওলানা মামুনুল হককে ওই রিসোর্টে অবরুদ্ধ করে রাখে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় স্থানীয় প্রশাসন, পুলিশসহ সাংবাদিককরা।

জানা গেছে, শনিবার (৩ এপ্রিল) বিকেলের দিকে হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা মামুনুল হক তার দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে রয়েল রিসোর্ট এর ৫০১ নাম্বার রুমে উঠেন। পরে বিকালে স্থনীয় কয়েকজন এসে অবরুদ্ধ করে ফেলে।ওই খবর পেয়ে  স্থানীয় ছা্ত্রলীগ ও যুবলীগের কিছু নেতাকর্মী ওই ‍রুমে জোরপুর্বক ঢুকে মামুনুল হকের সাথে ধস্তাধস্তি করতে দখা গেছে।পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

ওই সময় ওসি তবিদুর রহমান বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে রয়েছি। কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে দেওয়া যাবে না। এজন্য পুলিশ প্রস্তুত রয়েছে। এছাড়া মামুন লোকের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে বলেও জানান ওসি।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seven − 2 =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর