মঙ্গলবার, মার্চ ২, ২০২১




সোনারগাঁয়ে ৩ মাস পর লাশের মাথা উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জ প্রতিদিন:

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে এক মুদি দোকানিকে হত্যার তিন মাস পর তার বিচ্ছিন্ন মাথা উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত মো. বিল্লাল হোসেন নামে  কলতাপাড়া মীরেরটেক গ্রামের রেহাজউদ্দিনের ছেলে।

সোমবার (১ মার্চ) বিকেলে উপজেলার জামপুর ইউপির কলতাপাড়ায় মিরেরটেক এলাকায় একটি মাছের ঘের থেকে মাছ ধরার সময় বাজারের ব্যাগে কুচুরিপানার নিচ থেকে মাথাটি উদ্ধার করা হয়। বিচ্ছিন্ন মাথা উদ্ধারের পর তালতলা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পিবিআইয়ের কাছে হস্তান্তর করেছেন।

যদিও হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের স্ত্রী রুমা আক্তার বাদী হয়ে সোনারগাঁও থানায় মামলা দায়ের করেছেন। কিন্তু পুলিশ তিন মাসেও হত্যার কোনো রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি।

সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আহসানউল্লাহ জানান, ২০২০ সালে ৬ ডিসেম্বর রোববার রাত ৮টার পর দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার উদ্দেশ্যে রওনা হলেও তিনি বাড়ি ফেরেননি। পরিবারের লোকজন মোবাইল ফোনে কল দিলেও ফোন রিসিভ করেননি। পরদিন সকালে বাড়ির পেছনের জঙ্গলে তার ছেলে ফয়সাল হোসেন তার বাবার বিচ্ছিন্ন মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার দিলে হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি জানাজানি হয়। পরে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দিলে ক্রাইম সিনের সদস্যদের সহযোগিতায় মাথাবিহীন মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

আহসানউল্লাহ আরো জানান, মামলাটি বর্তমানে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) তদন্ত করছেন। বিচ্ছিন্ন মাথাটি পিবিআইয়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 + 11 =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর